করওয়া চৌথে স্বামীর জন্য উপোস করলেন নুসরাত

আজ করওয়া চৌথ। হিন্দু নারীদের জন্য খুবই বিশেষ একটি দিন আজকে। এই বিশেষ দিনে স্ত্রীরা সারাদিন স্বামীর নামে উপোস করে। আর চাঁদ ওঠার পর চালুনির মধ‍্য দিয়ে স্বামীর মুখ দেখে উপোস ভাঙেন।

বলিউডি সিনেমার দৌলতে বাঙালিরাও এখন এই করওয়া চৌথ ব্রতর রীতিনীতি সম্পর্কে বেশ ওয়াকিবহাল হয়ে গিয়েছেন।

টলিউডেও অভিনেত্রী তথা তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহান পালন করেন এই ব্রত। স্বামী নিখিল জৈনের মঙ্গল কামনায় গোটা দিন উপোস থেকে চাঁদ ওঠার পর তার হাত থেকেই খাবার, জল খান তিনি।

গত বছরও এমনটাই করেছিলেন সাংসদ অভিনেত্রী। সেই ছবিগুলিই ফের একবার ভাইরাল হয়েছে সোশ‍্যাল মিডিয়ায়।

গত বছর বিয়ের পরে প্রথম করওয়া চৌথ ছিলো নুসরাতের। সমস্ত রীতিনীতি নিয়ম মেনেই নিষ্ঠার সঙ্গে ব্রত পালন করেছিলেন অভিনেত্রী।

তবে নুসরাত একা নন, স্ত্রীর সঙ্গে সারাদিন উপোস করেছিলেন স্বামী নিখিলও। তাই পূজার পর একসঙ্গেই উপোস ভাঙেন দুজনে। নুসরাতের ফ‍্যানপেজ থেকে ফের একবার শেয়ার করা হয়েছে ছবিগুলি।

তবে এই ব্রত পালন করা নিয়েও মৌলবাদীদের চোখ রাঙানির মুখে পড়তে হয়েছিল অভিনেত্রীকে। ভিন্ন ধর্মে বিয়ে করে চূড়া, সিঁদুর পরে হিন্দু রীতি পালন করায় জোর সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন নুসরাত । কিন্তু সেসবে পাত্তা দেয়ার পাত্রী তিনি নন।

এমনকি এখনো মাঝে মাঝেই সমালোচনার তীরে বিদ্ধ হতে হয় নুসরাতকে। অষ্টমীর অঞ্জলি দেয়া থেকে শুরু করে বিজয়া দশমীতে শুভেচ্ছা জানানো সবেতেই কটাক্ষ উড়ে এসেছে তার দিকে। তবে প্রতিবারের মতো নুসরত এবারেও কোনো আলোচনা সমালোচনারই জবাব দেননি।

সব ধর্মের উৎসবেই অনুরাগীদের উদ্দেশে শুভেচ্ছা জানান তিনি। গত বারের পুজোতেও তিনি স্পষ্ট জানিয়েছিলেন, অনেকদিন ধরেই অষ্টমীর অঞ্জলি দিয়ে আসছেন তিনি। স্বামী নিখিলকে নিয়ে রথের দড়ি টানা, জন্মাষ্টমী পালন, ইদে শুভেচ্ছা জানানো সবই করেন নুসরাত।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*