ভুলেও স্ত্রীর এই ৪ জায়গায় হাত দেবেন না!

স্বা’মী-স্ত্রী একজন আরেকজনের কাছে ঘনিষ্ট হওয়ার অন্যতম হলো স’ঙ্গ’ম। আর স’ঙ্গ’মের আ’নন্দে উপভোগ করার বদলে যদি ব্যাথা বা বির’ক্ত হয় তাহলে আ’নন্দটাই মাটি হয়ে যায়।

ব্যাপারটা মূ’লত ছোঁয়াছুঁয়িরই! কিন্তু, আপনার স’ঙ্গিনী তাঁর শ’রীরের সব জায়গাতেই আপনার স্পর্শ উপভোগ করবেন, এমন কোনও মানে আছে কি?

আদতে কিন্তু নেই! তাই একটু সতর্ক থাকুন। সে’ক্সের সময়ে ভু’লেও স’ঙ্গিনীর শ’রীরের এই ৪ জায়গায় হাত দেবেন না।

যৌ’না’ঙ্গের নিচের দিকে:

যৌ’না’ঙ্গ যে কোনও মানুষেরই শ’রীরের সবচেয়ে স্পর্শকাতর জায়গা। বিশেষ করে না’রীর। তাই স’ঙ্গ’মের সময়ে যৌ’না’ঙ্গের নিচের দিক, যাকে ইংরেজিতে বলে কার্ভিক্স, সেখানে হাত দেবেন না। তাতে ভাল লাগার চেয়ে ব্য’থা পাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

যো’নিমুখ:

যো’নিমুখ অবশ্যই না’রী শ’রীরের আরও এক স্পর্শকাতর অ’ঙ্গ। ইংরেজিতে যাকে বলে ক্লিটোরিস। এই অংশে হাত দিলে না’রী উ’ত্তেজিত হন ঠিক কথা। কিন্তু, তার কায়দাটা মাথায় রাখা দরকার। আলতো করে যো’নিমুখে আঙুলের ছোঁয়া না’রীকে উ’ত্তেজিত করবে। কিন্তু, আচমকাই ওই অ’ঙ্গে হাত দিলে ব্য’থা লাগতে পারে। কেন না, স’ঙ্গিনী তখন সেটার জন্য প্রস্তুত থাকেন না।

পায়ের পাতা:

পায়ের পাতার তলায় হাত দিলে বেশির ভাগ মানুষেরই সুড়সুড়ি লাগে। এটা মাথায় রেখে ওই সময়টায় স’ঙ্গিনীর স’ঙ্গে খুব বেশি খু’নসুটিতে না যাওয়াই ভাল! প্রথম দু’-একবার ব্যাপারটা তাঁকে উ’ত্তেজিত করতে পারে! পরের বার কিন্তু বির’ক্তিই জ’ন্মাবে তাঁর মনে!

পায়ু:

অ্যানাল সে’ক্সের সময়ে অনেকেই স’ঙ্গিনীর পায়ু স্পর্শ করে থাকেন। আঙুল দিয়ে। খেয়াল রাখু’ন, আচমকা আঙুল দিলে তাঁর ব্য’থা লাগতে পারে। তাই অ্যানাল সে’ক্সের সময়ে স’ঙ্গিনীর পায়ু স্পর্শ করার আগে আঙুলে লুব্রিকেটর দিয়ে নেওয়াটা বাঞ্ছনীয়।

অন্যথায় রতিসু’খ আপনার জন্য নয়!ভু’লেও স্ত্রীর এই ৪ জায়গায় হাত দেবেন না , দিলেই মহাবি’পদ। জেনে নিন কোন ৪ টি জায়গা

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*