৫ বছরের প্রে’মে একাধিকবার যৌ’ন সম্পর্ক, পাঠানের বিরুদ্ধে অভিযোগ অভিনেত্রীর

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্ত শুরু হতেই উঠে এসেছে বলিউডের অকাধিক কালো অধ্যায়, নেপোটিজম, ‘মি টু’, মাদক দ্রব্য থেকে শুরু করে নানা দিক।

নানা অভিযোগ সামনে উঠে আসছে এই সময়ে। যা এতদিন ছিল পর্দার আড়ালে। তার মধ্যে কোনটা সত্যি, আর কোনটা মিথ্যে তা বোঝা দায় হয়ে উঠছে।

সম্প্রতি পায়েল ঘোষ নামে এক অভিনেত্রাী শিরোনামে উঠে আসে পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ করায়। অনুরাগের পাশে দাঁড়ান নির্দেশক আনন্দ কুমার।

তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় জানান, কাজল ঘোষ এই ধরনের কাজ আগেও করেছে। এর আগে ক্রিকেটার ইরফান পাঠানের বিরুদ্ধে প্রেমে প্রতারণা ও শারীরিক সম্পর্কের অভিযোগ তুলেছিলেন তিনি। যা নিয়ে তোলপার হয়েছিল ক্রিকেট জগৎ। চলুন জানা যাক সেই কাহিনি।

বর্তমানে মরুদেশে চলছে আইপিএল ২০২০। সেখানে ধারাভাষ্যকার হিসেব নিজের কাজ করছেন ইরফান পাঠান। কিন্তু এরইমধ্যে পুরোনো একটি ঘটনায় ফের শিরোনামে প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার।

সম্প্রতি পায়েল ঘোষ পকিচালক অনুরাগ কাশ্যপের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছিলেন। যেই অভিযোগ ফিল্ম জগতে আলোড়নের সৃষ্টি করেছিল।

সেই সময় অনুরাগ কাশ্যপের পাশে দাঁড়ান আরেক পকিচালক আনন্দ কুমার। বলে পায়েল ঘোষ এর আগেও একইরকম অভিযোগ ক্রিকেটার ইরফান পাঠানের বিরুদ্ধে করেছিলেন। সে একটি পায়েল ঘোষের পুরোনো ট্যুইট রি-ট্যুইট করেন যেখানে তিনি পাঠানের বিরুদ্ধেও অভিযোগ এনেছিলেন কয়েক বছর আগে।

আনন্দ কুমার তার ট্যুইটে লেখেন, নিজের যৌন হেনস্থার অভিযোগ এর আগেও করেছেন অভিনেত্রী। কিছু বছর আগে একই রকমের অভিযোগ ইরফান পাঠানের বিরুদ্ধে এনেছিলেন তিনি।

সেই সময় পায়েল ঘোষ পোস্টে লিখেছিলেন তার সঙ্গে পাঠানের ২০১১ থেকে ২০১৫ পর্যন্ত সম্পর্ক ছিল। একইসঙ্গে ইরফান পাঠানের বিরুদ্ধে প্রেমে প্রতারণারও অভিযোগ এনেছিলেন তিনি।

যদিও পরে সেই পোস্ট ডিলিট করে দেন পায়েল ঘোষ। কিন্তু অনুরাগ কাশ্যপের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনার পর, আনন্দ কুমার মুম্বই পুলিসকে বলে সেই পস্টের রেকর্ড বার করতে বলেন।

এটা আমাদের সকলের জানা যে, বলিউডের সঙ্গে ক্রিকেটের সম্পর্ক নতুন নয়। ক্রিকেটারদের সঙ্গে বলিউডের অভিনেত্রীদের বন্ধুত্ব বা সম্পর্কের খবর একাধিক প্রকাশ্যে এসেছে। কেউ বিয়ে করেছে, কারও সম্পর্ক পরিণতি পায়নি।

যাদের সম্পর্ক পরিণতি পায়নি তার পরে একে অপরকে প্রকাশ্যে বা সোশ্যাল মিডিয়ায় দোষারোপ করেছেন। পায়েলও কি ঠিক তাই করেছেন কিনা তা নিয়ে রয়েছে প্রশ্ন।

আইপিএলের ধারাভাষ্যকারের কাজে ব্যস্ত রয়েছেন পাঠান। তার মধ্যে এই পুরোনো বিষয় পের সামনে উঠে এসেছে। যাতে প্রাক্তন তারকা ক্রিকেটের অস্বস্তি কিছুটা বেড়েছে বলেই মনে করছে ক্রিকেট মহল।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*