শাহরুখকে বিয়ে করে ফুলশয্যার রাতে জুটেছিল মশার কামড় আর অপেক্ষা

শাহরুখ খান বলে কথা, হাজার হাজার মেয়ের স্বপ্নের পুরুষ শাহরুখ খান। কিং খান একবার দুহাত খুলে দাঁড়ালে লক্ষ লক্ষ মানুষের মনের গিটার মুহূর্তে বেজে ওঠে।

অথচ সেই মানুষটাকেই স্বামী হিসেবে পেয়ে কেমন আছেন তাঁর ঘরণী, স্ট্রাগেলের সময়ের প্রতিটা কথা আজও মনে রেখেছেন শাহরুখ…

শাহরুখ খান ও গৌরী খানের প্রেমকাহিনি যেন এক সিনেমার প্লট। হাজার একটা উঠা নামার মধ্যে দিয়েই আজ তাঁরা পাওয়ার কপিল।

একের পর এক ঝড় এসেছে, উঠেছে বিচ্ছেদের বিতর্কও, কিন্তু আজও এই সম্পর্ক টিকে রয়েছে, শাহরুখ খান যার সম্পূর্ণ ক্রেডিট দিয়ে থাকেন গৌরীকে।

শাহরুখ খানের কথায়, কোটি কোটি মানুষের স্বপ্নের পুরুষের সঙ্গে ঘর করাটা কতটা কঠিন তা গৌরী জানে। গৌরীই আগলে রেখে আমাকে ও সংসারকে।

প্রেমের সম্পর্ক থেকেই শুরু এই জীবন যুদ্ধ। কখনও ভেঙে পড়েননি গৌরী। একের পর এক মানুষের কাছে গিয়ে তখন শাহরুখ কেবলই সাহায্য চাইছেন একটা সুযোগের। ভরসা রেখেছিলেন গৌরী খান।

এরপর থেকেই শুরু তাঁর নয়া অধ্যায়। বিয়ে করে স্ত্রীকে ঘরে তোলা। কিন্তু তখনও শাহরুখ খান খুব বেশি পাঠ পান না।

হেমা মালিনির সঙ্গে একটি ছবিতে সামান্য পাঠ পেয়েছিলেন। তাঁর বিয়ের রাতেই ছিল শ্যুট। সেদিন বিয়ের পর রাতে স্ত্রীকে নিয়েই সেটে হাজির তিনি।

ডেড লাইন, কল টাইম ফেল করতে নারাজ। কিন্তু সারা রাতের অপেক্ষাতেও আনেননি হেমা মালিনি। শাহরুখ নিজের পাঠ টুকু করে ব্যাগ স্টেজে আসেন।

দেখেন গৌরী একটা কোণে ঘুমে ঢুলছে, মশার কামড়ে নাজেহাল। তবুও এক মুখ হাসি। সেই দিনের কথা আজও ভোলেননি তাঁরা।

এভাবেই শুরু হয়েছিল তাঁদের সংসার করা। প্যারিসের নামে দার্জিলিং, এটাই ছিল শাহরুখের হানিমুনের ডেস্টিনেশন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*