ফুলশয্যার রাতেই স্ত্রীকে ডিভোর্স দিতে চেয়েছিলেন রীতেশ

বলিউডের মিস্টি প্রেমের জুটি বললেই সবার প্রথমে মাথায় আসে রিতেশ দেশমুখ এবং জেনেলিয়া ডি’সুজার নাম। ‘তুঝে মেরি কসম’ সিনেমার সেটে মন দেওয়া নেওয়া শুরু হয়েছিল।

তাদের মিষ্টি প্রেম যে কাউকেই হার মানাবে। সিনেমা কাজ করতে করতেই প্রেম তারপর বিয়ে। সম্প্রতি এমন এর ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে, যা শুনে সকলেরই চক্ষু চড়কগাছ হয়েছে।

ফুলশয্যার রাতেই স্ত্রীকে ডিভোর্স দিতে চেয়েছিলেন রিতেশ দেশমুখ। কিন্তু কেন এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন অভিনেতা খোলসা করলেন নিজেই।

যত দিন যাচ্ছে ততই যেন জেনেলিয়া -রিতেশের প্রেম আরও জোরালো হচ্ছে। প্রতিটা দিনই ভালবাসা দিবস তাদরে কাছে।

সম্প্রতি করোনা মোকাবিলায় হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন রিতেশ-জেনেলিয়া। এর আগে হয়তো এতটা সময় একসঙ্গে কাটাননি এই যুগল।

লকডাউনে একের পর এক মজার ভিডিও নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেই যাচ্ছেন রিতেশ। সেখানে কখনও তাকে বাসন মাজতে, কখনও বাড়ি পরিষ্কার করতে দেখা গেছে রিতেশকে। কিন্তু জেনেলিয়া ব্যস্ত তার ফোন নিয়ে।

এমন জুটির প্রশংসায় পঞ্চমুখ সকলেই। ২০১২ সালে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন জেনেলিয়া ও রিতেশ। লকডাউনের মধ্যে একাধিক মজার ভিডিও শেয়ার করছেন রিতেশ। সম্প্রতি সেরকমই একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন অভিনেতা। যা দেখে সকলেই হতবাক হয়েছেন।

ভিডিওটিতে রিতেশ বলেছেন, ফুলশয্যার রাতেই আমি জেনেলিয়াকে ডিভোর্স দিতাম। এর পিছনেও একটি বড় কারণ রয়েছে। ফুলশয্যার রাতে আমি ওকে বলেছিলাম মুখ থেকে ঘোমটাটা সরাও, ও বলেছিল আমি পারব না নিজে সরিয়ে নাও। আমি সেদিনই বুঝেছিলাম ও একটা কামচোর।

রিতেশের এই কথা শুনেই সকলে অবাক হয়েছেন। তবে পুরো ভিডিওটি যে মজার ছলে বানানো হয়েছে তা বোঝা গেছে। বর্তমানে দুই সন্তানও রয়েছে তাদের।

ভিডিওটি বানানোর সময় পাশে রিতেশকে দেখা গেছে। নিজের টিকটকে ভিডিওটি শেয়ার করেছেন অভিনেতা। মাঝে মধ্যেই এমন মজার ভিডিও শেয়ার করে থাকেন রিতেশ।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*