বাংলাদেশ থেকে পাঠাচ্ছে অশ্লীল মেসেজ, ব্যবস্থা নিচ্ছেন শ্রাবন্তী

টলিউডের যে কয়জন প্রথম সারির নায়িকা রয়েছেন বর্তমানে তাদের মধ্যে অন্যতম শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। এপার বাংলা ও ওপার বাংলা, দুই বাংলাতেই সমানভাবে জনপ্রিয় মিষ্টি চেহারার এই নায়িকা।

শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়-এর ভক্তের সংখ্যা নেহাত কম নয়। তবে তাদের মধ্যেই কেউ একজন সম্প্রতি সময়ে এই অভিনেত্রীকে বিরক্ত করছেন।

বাংলাদেশের একটি নম্বর থেকে দিনের পর দিন অশ্লীল সব মেসেজ (খুদে বার্তা) পাচ্ছিলেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী। বাংলাদেশের পরিচিতজনদের মাধ্যমে ওই নম্বরে যোগাযোগ করে খুদে বার্তা বন্ধ করার চেষ্টাও করেছেন তিনি। তাতে বিরক্ত করার মাত্র আরও বেড়ে গেছে। এখন প্রায় প্রতিদিনই ওই নম্বর থেকে অশ্লীল সব খুদে বার্তা পাঠানো হচ্ছে শ্রাবন্তীকে।

উপায় না দেখে গত মঙ্গলবার বিকেলে কয়েকটি মেসেজের স্ক্রিন শট সংযুক্ত করে কলকাতার বাংলাদেশি ডেপুটি হাইকমিশনারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন শ্রাবন্তী।

কলকাতা থেকে ফোনে শ্রাবন্তী জানান, বছরখানেক ধরে বাংলাদেশের একটি নম্বর থেকে তাঁর কাছে অশ্লীল সব খুদে বার্তা পাঠানো হচ্ছে। আগে কিছু বিরতি দিয়ে পাঠানো হতো। এখন প্রায় প্রতিদিনই পাঠানো হচ্ছে।

শ্রাবন্তী বলেন, ‘মাসখানেক ধরে বাংলাদেশের পরিচিতিজনদের মাধ্যমে ওই নম্বর ব্যবহারকারীকে বের করে মেসেজ পাঠানো বন্ধ করার চেষ্টা করেছি। কিন্তু কাজ হয়নি। ইদানীং মেসেজ পাঠানোর মাত্রা বেড়ে গেছে। তাই বাধ্য হয়ে ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে অ্যাকশন নিতে ভারতে বাংলাদেশি ডেপুটি হাইকমিশনারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছি।’

হতাশার স্বরে তিনি বলেন, ‘ফেসবুক বা ইনস্টাগ্রামে অনেক সময় বিরূপ মন্তব্য আসে, সেসব মেনে নেওয়া যায়। কিন্তু সরাসরি ফোনে অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ করে মেসেজ পাঠানো খুব অন্যায়। এটা মেনে নেওয়া যায় না।’

এ ব্যা

পারে কলকাতার বাংলাদেশি উপহাইকমিশনে যোগাযোগ করা হলে এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, শ্রাবন্তীর লিখিত অভিযোগটি তাঁরা পেয়েছেন, যথাযথ ব্যবস্থা নিতে তাঁরা কাজ শুরু করেছেন। ইতিমধ্যে অভিযোগপত্রটি বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।- প্রথম আলো

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*