হিজড়াকেও ছাড়লো না ‘ভণ্ড’ প্রেমিক

ঈশা খাঁ, যার নেশাই ছিল প্রেমের অভিনয় করা। আর এ ভণ্ড প্রেমিকের ফাঁদে পড়ে অনেক মেয়েই হারিয়েছে সর্বস্ব। তার এ ফাঁদে পড়েছেন এক হিজড়াও।

হিজড়ার সঙ্গে প্রেমের অভিনয় করে দেড় লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন ঈশা খাঁ। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে সমন জারি করেছে আদালত। রোববার দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শিহাব উদ্দিন এ সমন জারি করেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, প্রতারণার শিকার ওই হিজড়ার নাম জুঁই। তিনি ২০১৭ সালে ঢাকার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় তার দলের সঙ্গে থাকতেন। ওই সময় প্রেমিক ঈশা খাঁ বসুন্ধরা কমিউনিটি সেন্টারে চাকরি করতেন। একই এলাকায় থাকার সুবাদে তাদের মধ্যে বন্ধুত্ব তৈরি হয়। একপর্যায়ে প্রেমে রূপ নেয়। একদিন জরুরি প্রয়োজনের কথা বলে তিন মাসের জন্য দেড় লাখ টাকা ধার নেন ঈশা খাঁ।

চলতি বছরের ৯ সেপ্টেম্বর প্রেমিক ঈশা খাঁর কাছে টাকা চাইলে তিনি কোনো টাকা নেননি বলে জানান। পরে স্থানীয়ভাবে বিষয়টির মীমাংসা না করতে পেরে আজ রোববার পটুয়াখালী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দ্বিতীয় আমলি আদালতে একটি মামলা করেন জুঁই। পরে আদালত ঈশা খাঁর বিরুদ্ধে সমন জারি করে।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে জুঁই বলেন, টাকা নেয়ার আগে ঈশা খাঁ আমার সঙ্গে সুন্দর করে কথা বলতেন। নিজের জমানো টাকা ধার দেই তাকে। সেই টাকা চাওয়ায় এখন আমার সঙ্গে মোবাইলে কথাও বলতে চান না, দেখাও করেন না।

বাদীপক্ষের আইনজীবী এসএম তৌফিক হোসেন মুন্না বলেন, তৃতীয় লিঙ্গের জুঁইয়ের সঙ্গে প্রেমের অভিনয় করে ঈশা খাঁ দেড় লাখ টাকা আত্মসাৎ করে প্রতারণা করেন। এ ঘটনায় ৪০৬ ও ৪২০ ধারায় একটি মামলা করেন জুঁই। আদালত মামলাটি সরাসরি আমলে নিয়ে আসামির বিরুদ্ধে সমন জারি করে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*