ইমরান হাশমির নায়িকা থেকে হরভজনের স্ত্রী

গীতা বসরা। বলিউডের একসময়ের আলোচিত চিত্রনায়িকা। ইমরান হাশমির বিপরীতে ‘দ্য ট্রেন’ সিনেমায় অভিনয় করেই আলোচনা আসেন তিনি।

কিন্তু বলিউডে থিতু হওয়া স্বপ্ন অধরাই রয়ে গেছে তার। ২০০৭ সালে মুক্তি পাওয়া ‘দ্য ট্রেন’ সিনেমার একটি গানই বদলে দেয় গীতার জীবন।

টেলিভিশনে ওই সিনেমার গান দেখেন ভারতীয় ক্রিকেটার হরভজন সিং। ভূত চাপে তার মাথায়, যে করেই হোক এ নায়িকার সঙ্গে যোগাযোগ করবেন তিনি। বহু কষ্টে জোগাড় করেন গীতার নম্বর। ১০ মাস চেষ্টার পর হরভজনের প্রেমে সাড়া দেন গীতা। ৮ বছর চুটিয়ে প্রেমের পর ২০১৫ সালে সাতপাপে বাঁধা পড়েন তারা। এমনটাই জানা গেছে ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে।

মজার ব্যাপার হলো- হরভজন যখন গীতার ফোন নম্বর খুঁজছিলেন তখন তাকে সহযোগিতা করেছিলেন যুবরাজ সিং। প্রথমে প্রেমের বিষয়টি এড়িয়ে গেলেও পরে এক সাক্ষাৎকারে তা স্বীকার করে হরভজন। হরভজন জানান, গীতার সঙ্গে তার আলাপ গাঢ় হয় আইপিএলের মাধ্যমে। আইপিএলে প্রথম সিজনে হরভজনের কাছে টিকিট চায় গীতা। টিকিট দিতে গিয়েই কফি ডেটে বসে পড়েন তারা

ক্যারিয়ারের কথা চিন্তা করে গীতা শুরুতে হরভজনের প্রস্তাবে মত দেননি। বন্ধুদের কাছ থেকে হরভজনের ব্যাপক প্রশংসা শুনেছেন গীতা। তারপর সবদিক চিন্তা করে সাড়া দেন ক্রিকেটারের প্রেমে। বিয়ের দুই বছর পর ২০১৭ সালে কন্যাসন্তান জন্ম দেন গীতা। হরভজন-গীতা দম্পতির একমাত্র সন্তানের নাম হীনায়া হীর প্লাহা।

২০০৬ থেকে ২০১৬ সালের মধ্যে মাত্র ৬টি সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন গীতা। সর্বশেষ মুক্তি পায় গীতা অভিনীত ‘লক’ সিনেমাটি। তবে মা হওয়ার পর পুরোপুরি বিদায় জানান রঙিন দুনিয়াকে। দাম্পত্য জীবনে বেশ সুখেই আছেন হরভজন সিং ও গীতা বসরা। এমনটাও জানা গেছে ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*