২৩ বছরের অনার্স পড়ুয়া মুরিদকে বিয়ে করলেন ৭৩ বছরের পীর

ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার নবাবপুরের বিশিষ্ট পীর জামশেদ আলম ওরফে ফুল হুজুর ৭৩ বছর বয়সে ২৩ বছর বয়সী এক ছাত্রীকে বিয়ে করেছেন। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর ফেনীতে কৌতূহলের সৃষ্টি হয়েছে।

ওই তরুণীর বাড়ি ফেনী সদর উপজেলার বালিগাঁও ইউনিয়নের ফকিরহাট এলাকায়। ফুল হুজুর বিশ্ব সুন্নি আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা ইমাম হায়াতের অনুসারী।

সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সূত্র জানায়, মুরিদদের আহ্বানে উপজেলার ফকিরহাট এলাকায় মাঝে মধ্যে অবস্থান করতেন নবাবপুর ইউনিয়নের ফতেহপুর গ্রামের ফুল হুজুর। এ সুবাধে স্থানীয় নারী-পুরুষ অনেকের সঙ্গে তার পীর-মুরিদি সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

স্থানীয়রা জানান, ওই তরুণীর পরিবারের সঙ্গে ফুল হুজুরের সম্পর্কের কারণে ফেনী জিয়া মহিলা কলেজের অনার্সপড়ুয়া ছাত্রী তানজিনা আক্তার (২৩) তার আদর্শে অনুপ্রাণিত হন। এক পর্যায়ে ফুল হুজুর তার পরিবারের কাছে বিয়ের প্রস্তাব দেন। প্রস্তাবে সম্মত হন ওই ছাত্রী।

তানজিনা বালিগাঁও ইউনিয়নের কাতালিয়া গ্রামের নুর বক্স মিয়াজীর বাড়ির প্রবাসী দুলালের মেয়ে। ছাত্রীর নানা নুর করিম বিয়ের অনুষ্ঠান শেষে বলেন, ‘তার নাতনি ফুল হুজুরের মুরিদ। বুধবার (১৮ নভেম্বর) দুপুরের দিকে ১০ লাখ টাকা কাবিনে ঢাকার আদালত এলাকায় ফুল হুজুর তরিকার প্রধান দরবারে বড় আয়োজনে বিয়ে সম্পন্ন হয়। হুজুরের সঙ্গে নাতিনের বিয়ে দিতে পেরে আমরা খুশি।’

ফুল হুজুরের এক মুরিদ জানান, ৭৩ বছর বয়স পর্যন্ত হুজুর বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হননি। কাতালিয়ার ওই ছাত্রী আগে থেকেই হুজুরের আদর্শে অনুপ্রাণিত ছিলেন। হুজুর স্বপ্নযোগে বিয়ের নির্দেশনা পেয়ে বৃদ্ধ বয়সে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। এতে রাষ্ট্রীয় অথবা ধর্মীয় আইনের কোনো ব্যত্যয় ঘটেনি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*