স্বামীকে খুশি রাখতে রোজ রাতে যা করেন রানি মুখার্জি

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী রানি মুখার্জি। দর্শকদের তিনি উপহার দিয়েছেন জনপ্রিয় অনেক ছবি। সম্প্রতি ‘হিচকি’ ছবির মাধ্যমে তিনি তুমুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। সমস্ত অভিনেত্রীদের একটি আবশ্যক বিষয় হল তাদের সাজগোজ। কাজের জন্য সব সময় সেজে ফিটফাট রাখতেই হয় নিজেদের। কিন্তু রানি মুখার্জির গল্পটা একটু ভিন্ন।

ভারতীয় গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে রানি মুখার্জি বলেন, তার জীবন অন্যান্য অভিনেত্রীর মত নয়। তিনি অভিনয়ের জন্য যত না সাজগোজ করেন তার থেকে বেশি করেন স্বামী আদিত্য চোপড়া জন্য।

বিয়ের পর এটা জরুরি হয়ে দাঁড়ায় যে স্ত্রীকে যেন সুন্দর লাগে তার স্বামীর চোখে। বাড়িতে থাকার সময় তিনি বিনা মেকআপেই থাকতে পছন্দ করেন। কিন্তু রাতের বেলা একটু সেজে স্বামীর জন্য প্রস্তুত হন তিনি।

তিনি বলেন, নিজের কাজ নিয়ে যতটা চাপ তার নেই স্বামীকে নিয়ে তার থেকেও বেশি চাপে থাকেন তিনি। রানির অভিনয় ক্যামেরার সামনে হলেও ক্যামেরায়ই আপত্তি স্বামী আদিত্য চোপড়ার। আদিত্য চোপড়া চান না স্ত্রীর কারণে তাদের একমাত্র কন্যা আদিরাও ক্যামেরার সামনে আসুক। অভিনেত্রী সংসার সুখের রাখতে আর স্বামীকে খুশি রাখতে অনেক কিছু করে থাকেন।

রানি মুখার্জি বলেন- আগে আমি স্ত্রী, তারপর একজন অভিনেত্রী। তার মতে, একজন স্বামী রাতে বাড়ি ফিরে কি দেখতে চান? একটা হাসিখুশি মুখ, আর বাড়ির সুন্দর বাতাবরণ। সেটাই যদি না থাকে তাহলে সংসার কখনো সুখের হতে পারেনা।

রোজ স্বামী যদি বাড়ি ফিরে দেখে বাড়ির পরিবেশ ভালো না, বা তার স্ত্রীকে খুব অগোছালো লাগছে তাহলে তার সারাদিনের ক্লান্তি দূর হবে কি করে। তাই সংসার সুখের রাখতে স্ত্রীর নিজেকে যেমন ঠিক থাকতে হয় তেমন বাড়ির পরিবেশও ভালো রাখতে হয়।

তাই প্রতিদিন রাতে আদিত্যের বাড়ি ফেরার আগে তিনি মেকআপ করেন। যাতে তাকে তার স্বামীর চোখে সুন্দরী লাগে। মেকআপের সঙ্গে তিনি সুন্দর পোশাকও পরেন। শুধু তাই নয়, রোজ রাতে রানিকে নিজের ঘর পরিষ্কার ও সাজাতে হয়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*