শরীরে নেই কোনো কাপড়, প্রকাশ্যে মেলানিয়া ট্রাম্পের যে ছবি


ট্রাম্পের সঙ্গে বিবাহের আগে মেলানিয়া ট্রাম্পের নামে ছিল মেলানিয়া নস। ট্রাম্প দাবি করেন তিনি সুপার মডেল ছিলেন। বিরোধীদের অবশ্য দাবি ট্রাম্পের সঙ্গে আলাপের আগে তিনি অতি ছোটোখাটো মডেল ছিলেন।

এমনকী অশ্লীল মডেলিং-ও করতেন। ট্রাম্প-কে ধরেই তিনি সুপারমডেল হন। যাইহোক সেই গ্ল্যামারাস জীবন থেকে মার্কিন ফার্স্ট লেডি হয়েছেন তিনি। এমন ফার্স্ট লেডি আগে পায়নি আমেরিকা। কিন্তু ক্রমে

এই ভূমিকায় তিনি মানিয়ে নিয়েছেন বলেই জানাচ্ছেন মার্কিনিরা –

মাত্র ১৬ বছর বয়সে মডেলিং করা শুরু করেছিলেন মেলানিয়া। ১৯৮৭ সালে স্লোভেনিয়ার এক ফটোগ্রাফার প্রথম তাঁর ফটোশুট করেন। এভাবেই মডেল হিসাবে তাঁর কেরিয়ার শুরু করেছিলেন মার্কিন ফার্স্ট লেডি।

তবে প্রথমদিকে সেভাবে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি মেলানিয়া, এমনটাই শোনা যায়। ছোটখাটো কাজ পাচ্ছিলেন, কিন্তু বিগ ব্রেক বলতে যা বোঝায় তা পাননি।

১৯৯৮ সালে তাঁর সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার শুরু পৈত্রিক সূত্রে হোটেল ব্যবসায়ী ডোনাল্ড ট্রাম্পের। আর তারপর থেকেই তাঁর ভাগ্য ঘুরে যায় বলা যায়।

ট্রাম্পের সঙ্গে সেই সময় বিভিন্ন পার্টিতে তাঁকে দেখা যেত। সেই সময় আমেরিকায় দারুণ আলোচনার বিষয় ছিল তাঁর ও ট্রাম্পের প্রেম।

১৯৯৯ সালে মারা যান ডোনাল্ড ট্রাম্পের বাবা ফ্রেড ট্রাম্প। সেখানে শোকের আবহেও সমান গ্ল্য়ামারাস থিলেন মেলানিয়া। ওই বছরই নিউ ইয়র্ক ম্যাগাজিন ডোনাল্ড এবং মেলেনিয়ার কয়েকটি হট ছবি প্রকাশ করেছিল।

২০০০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে মেলানিয়া স্পোর্টস ইলাস্ট্রেটেড পত্রিকার স্যুইম স্যুট সংস্করণের কভার গার্ল হন। মজার বিষয় ২০০০ সালেই মেলানিয়া মার্কিন প্রেসিডেন্টের সিল-এর উপর শুধুমাত্র লাল রঙের একটি অন্তর্বাস পরে ছবি তুলেছিলেন। ১৬ বছর পর তিনিই হন মার্কিন ফার্স্ট লেডি।

এফএইচএম পত্রিকার হয়েও ফটোশ্যুট করেছিলেন। ২০০৫ সালে ট্রাম্পের সঙ্গে বিয়ে হওয়ার পর থেকে মডেলিং কমিয়ে দেন মেলানিয়া।

এই রকম জায়গা থেকেই ২০১৬ সালে রাজনীতির আঙিনায় তাঁর পা রাখা। ট্রাম্প ওই বছর থেকে প্রেসিডেন্ট পদের দৌড় শুরু করেছিলেন।

প্রতিটি প্রচার সভাতেই মেলানিয়ার সতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি দেখা যেত। কিন্তু, বাধ সাধে তাঁর অতীত জীবন। বিরোধীরা দাবি করেন মেলানিয়া অতি ছোটোখাটো মডেল, এমনকী অশ্লীল ছবির মডেল ছিলেন। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় এই নিয়ে ডেমোক্র্য়াটরা ব্যাপক প্রচার করেছিল।

এমনকি মার্কিন সংবাদমাধ্যমে সেই সময়ে অন্য মহিলার সঙ্গে একসঙ্গে নগ্ন অবস্থায় মডেলিং করার ছবিও প্রকাশিত হয়। ডোনাল্ড ট্রাম্পের অবশ্য দাবি প্রথম থেকেই মেলানিয়া গ্ল্যামারাস সুপারমডেল ছিলেন। সেখান থেকে ট্রাম্পের জয়ের পর হোয়াইট হাউসে পা রাখা।


Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*