হঠাৎ একসঙ্গে বাড়িতে হাজির ১৪ জন প্রে’মিকা, তারপর…


না জা’নিয়ে বাড়িতে একস’ঙ্গে হাজির হলেন ১৪ জন প্রে’মিকা। এ ঘ’টনার জন্যে মোটেও প্র’স্তুত ছিলেন না প্রে’মিক।চ’মকে গিয়ে কোমায় চলে গেছেন তিনি। এমনি ঘ’টনা ঘ’টেছে ভা’রতের দিল্লি শহরে।

রাকিবের সেই ১৪ জন প্রে’মিকার একজন রাকিবের ফোন ঘেঁটে দে’খতে পায় সেখানে ‘বেবি গার্ল ১’, ২, ৩ থেকে থেকে ১৪ পর্যন্ত নাম দিয়ে ১৪ জন মে’য়ের নম্বর সেভ করা।

প্রে’মিকের বয়স মোটে ১৮। আর এর মধ্যেই তার যা কী’র্তিকলাপ, তা শুনে বিশ্বা’স না-ও হতে পারে!

১৮ বছর বয়সী রাকিবের আ’সলে মোটে একটি প্রে’মিকাকে নিয়ে শান্তি হচ্ছিল না। তাই দুটো, তিনটে নয়, এক্কেবারে ১৪ জন মে’য়ের স’ঙ্গে একস’ঙ্গে প্রে’ম করছিলেন তিনি।

জ’রিনা নাসের প্রে’মিকা জা’নান, আমি জানতে পারলামম যে রাকিব ১৩ জন মেয়ের সাথে আমাকে প্রতারণা করছিল। আমি আগে তার ওপর স’ন্দে’হ ছিল। তাই একদিন আমি গো’পনে তার ফোন চেক করলাম এবং দেখেছি যে তার ১৩ জন অন্যান্য মেয়েকে তার মেসেঞ্জারে বেবিগার্ল নামে ডাকে (১,২,৩ এবং আরও)।

বহুদিন পর্যন্ত তারা কেউ একবারের জন্যও বুঝতে পারেনি বাকি ১৩ জনের অস্তিত্বের কথা। জ’রিনা তখনই শুরু করেন প্ল্যানিং।

একে-একে বাকি ১৩ জনের স’ঙ্গে কথা বলে ফাঁ’স করে দেন রাকিবের সত্যিটা। তাদের ‘কমন প্রে’মিক’কে শিক্ষা দিতে একদিন সকলে একস’ঙ্গে পৌঁছে যান রাকিবের বাড়ি।

ঘুম থেকে উঠে ঘরে একস’ঙ্গে ১৪ জনকে দেখে ভ’য়ংকর ঘাবড়ে যায় সে। এতটাই যে শকে কোমায় চলে গিয়েছেন তিনি! কোমা থেকে ফি’রে আসার পর কী’ হবে, অবশ্য কেউই জানে না।


Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*