আটকে গেল বিদ্যার শুটিং মন্ত্রীকে ‘না’ বলায়


বলিউড অভিনেত্রী বিদ্যা বালানকে নৈশভোজের আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন এক মন্ত্রী। আর সেই নিমন্ত্রণ ফিরিয়ে দিয়েছিলেন অভিনেত্রী। যার ফলে আটকে গেছে বিদ্যা বালান অভিনীত সিনেমা ‘শেরনি’র’ শুটিং। এ কারণে ফের বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠেছে শিবরাজ সিং চৌহান শাসিত মধ্যপ্রদেশ।

অভিযোগ রয়েছে, ওই রাজ্যের বনমন্ত্রী বিজয় শাহ বিদ্যা বালানকে মধ্যাহ্নভোজ বা নৈশভোজের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। কিন্তু সেই নিমন্ত্রণ রাখা সম্ভব নয় বলে সোজাসাপ্টা জানিয়ে দেন বিদ্যা। এরপরেই বাঁধে বিপত্তি। যদিও এই অভিযোগ সত্য নয় বলে জানিয়েছেন অভিযুক্ত মন্ত্রী।

জানা গেছে, বর্তমানে বিদ্যা বালানের আগামী সিনেমা ‘শেরনি’র’ শুটিং চলছে মধ্যপ্রদেশে। সেই সূত্রে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে সেই রাজ্যেই রয়েছেন ‘মিশন মঙ্গলে’র এই অভিনেত্রী। সেই রাজ্যের একটি জঙ্গলে শুটিং হওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু অনুমতি নেয়া সত্ত্বেও হঠাৎ করেই প্রোডাকশন টিমের গাড়ি জঙ্গলে ঢুকতে বাধা দেন বালাঘাটের ডিস্ট্রিক্ট ফরেস্ট অফিসার।

তিনি বলেন, ‘প্রোডাকশন টিমের মাত্র দুটি গাড়ি জঙ্গলের ভেতরে যেতে পারবে। বাকি গাড়িগুলো যেতে পারবে না।’

এই ঘটনার পরপরই অভিযোগ উঠে এর পেছনে মন্ত্রীর ভূমিকা রয়েছে।

তবে সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন মন্ত্রী। সংবাদ সংস্থা এএনআইকে মন্ত্রী বিজয় শাহ বলেন, ‘শুটিং টিমের অনুরোধে আমি বালাঘাটে ছিলাম। ওরা আমাকে মধ্যাহ্নভোজ ও নৈশভোজে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলো। কিন্তু আমি সেই আমন্ত্রণ ফিরিয়ে দিয়েছিলাম।’

সে সময় আমি বলেছিলাম, ‘যখন মহারাষ্ট্রে যাবো তখন আপনাদের নিমন্ত্রণ রক্ষা করবো। এখন সম্ভব নয়।’

এসময় মন্ত্রী দাবি করেন, ‘আমন্ত্রণ রক্ষা করিনি এটা সত্যি। কিন্ত শুটিং বাতিল করিনি।’


Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*