কপালে ভালো জামাই জোটেনি, আমার বর নিয়ে টানাটানি করে: টয়া


জামাইটা আমার কিউট আছে। মেয়েরা, তোমরা ফুল দিয়ো, কলি দিয়ো, জামাইয়ের দিকে নজর দিয়ো না।’ স্বামীর নারী ভক্তদের জন্য সতর্কবার্তা হিসেবে ফেসবুকে এ স্ট্যাটাস দিয়েছেন অভিনেত্রী মুমতাহিনা টয়া।

স্বামী-স্ত্রী দুজনই তারকা। তাঁদের ব্যাপারে ভক্তদের উৎসাহ দুজনের জন্যই স্বাভাবিক ঘটনা। তবু স্ত্রী হিসেবে স্বামীকে নিয়ে কিছুটা চিন্তিত টয়া। তিনি মনে করেন, স্বামী যেহেতু তারকা, ভক্ত তাঁর থাকবে। ফেসবুকের ফ্যান-অনুসারীরা ভালোবেসে চকলেট, ফুল দিতেই পারে। তাতে কোনো আপত্তি নেই। কিন্তু কেউ যদি ফোনের পরে ফোন করতেই থাকে, সেটা মেনে নেওয়া হবে না।

তিনি বলেন, ‘ভক্তদের থাকতে হবে ভক্তের জায়গায়। একই ভক্ত যদি বারবার ফোন দিতে থাকে, তাহলে বিরক্তিকর পরিস্থিতি তৈরি হয়। একবার ফোন দেওয়া সুইটেবল। কিন্তু দুবার নয়। অনেকের আবার সময়জ্ঞান নেই। অসময়ে একের পর এক ফোন করতেই থাকে। শাওনের এসব নারী ভক্তের জ্বালায় আমি অতিষ্ঠ হয়ে যাচ্ছি। এ জন্য লিখেছি “মেয়েরা, তোমরা, ফুল দিয়ো, কলি দিয়ো, নজর দিয়ো না। এখন বলব, পারলে একবারের বেশি ফোন দিয়ো না।’

যে ভক্তদের কারণে আপনি অতিষ্ঠ, তাদের ব্যাপারে কী মনে হয়, কেন এমন করে তাঁরা? টয়া বলেন, ‘আসলে এসব মেয়ের কপালে ভালো জামাই জোটেনি। কী আর করব! ফেসবুকে সতর্ক করা ছাড়া তাঁদের আর কীই–বা বলব? তাঁদের জন্য মাঝেমধ্যে খুব খারাপ লাগে, আহারে বেচারি! অন্যের বর নিয়ে টানাটানি করে।’

গত বছরের ঈদুল আজহায় একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবিতে অভিনয় করতে গিয়ে শাওনের সঙ্গে বন্ধুত্ব হয় টয়ার। এরপর একে অপরের কাছাকাছি আসেন এবং প্রেমে জড়িয়ে যান। এর পাঁচ মাসের মাথায় পারিবারিকভাবে তাঁদের বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। গত ২৯ ফেব্রুয়ারি বিয়ে করেন তাঁরা।

বাংলা নাটকের জুটি হিসেবে শাওন-টয়া বেশ পরিচিত। স্বামীর সঙ্গে অভিনয় করতে ভালোই লাগে টয়ার। এখন করোনাকালে শুটিং সেটে বেশির ভাগ সময় একা থাকতে হয় তাঁকে। কিন্তু সহশিল্পী হিসেবে শাওন থাকলে একসঙ্গে কিছুটা সময় কাটানোর সুযোগ পান।

তিনি বলেন, ‘একসঙ্গে শুটিং থাকলে আমরা পাশাপাশি মেকআপ রুমে বসতে পারি, ঘুরতে পারি, একসঙ্গে খাই। করোনাকালে এসব নিয়ে আলাদা করে নজর রাখতে হয় না। তা ছাড়া শুটিংয়ে থাকলে সে আমাকে এক্সট্রা কেয়ার করে, যা আমি উপভোগ করি। যদিও সে অলস।’

সম্প্রতি টয়া শেষ করেছেন একটি ওয়েবভিত্তিক প্রযোজনার কাজ। ভালো গল্প পেলে অনলাইনের কাজে নিয়মিত হবেন তিনি। করোনাকালেও এই অভিনেত্রী নাটক, সংগীতচিত্রের শুটিং নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। ‘লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতা ২০১০’-এর সেরা দশে জায়গা করে নিয়েছিলেন টয়া। এরপর নাটক ও বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে পরিচিতি পান তিনি। অভিনয় করেছেন চলচ্চিত্রেও। তাঁর অভিনীত ছবি ‘বেঙ্গলি বিউটি’। তাঁর বর শাওন নাটকের পাশাপাশি চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন। শাওন অভিনীত সর্বশেষ চলচ্চিত্র ‘কাঠবিড়ালী’। যদিও তিনি শখের অভিনেতা। মূলত, তিনি একজন বৈমানিক। বেশির ভাগ সময় তাঁকে কাটাতে হয় বিদেশে।


Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*