পিরামিডের সামনে ‘আপত্তিকর’ ছবি, মিসরীয় মডেল গ্রে’প্তা’র


পিরামিডের সামনে যৌ’ন আ’বেদনময়ী ছবি তুলে ফটোগ্রাফারসহ গ্রে’প্তা’র হলেন মিসরীয় মডেল সালমা আল-শিমি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য সান, দ্য টাইমস এবং রুশ সংবাদমাধ্যম আরটি এ খবর দিয়েছে। জানা যায়, দক্ষিণ কায়রোর সাক্বারার নেক্রোপলিসে ৪ হাজার ৭০০ বছরের পুরোনো এক পিরামিডের সামনে একটি ফটোশুটে অংশ নেন মডেল শিমি।

তার ছবি তোলেন হুসসাম মোহাম্মদ নামে এক ফটোগ্রাফার। তাদের বি’রু’দ্ধে অ’ভি’যো’গ, ফেরাও যুগের ফ্যাশন অনুকরণে শিমি এমন পোশাক পরেছিলেন যাতে তার হাঁটু দেখা যাচ্ছিল সেইসঙ্গে দেহভঙ্গিতে ফুটে উঠেছিল যৌ’ন’তা। এর মাধ্যমে মিসরি ঐতিহ্যকে অসম্মান করা হয়েছে।

ছবিগুলো শিমি তার ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করলে ভা’ইরাল হয়ে যায়। নেটিজেনদের একাংশ ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানায়। এরপর মডেল ও ফটোগ্রাফারকে গ্রে’প্তা’র করে মিসরের টুরিজম পুলিশ। তবে ৫০০ মিসরি মুদ্রা জরিমানা প’রিশোধ করে মুক্তি পান দুজন।

এদিকে নেক্রোপলিসে পিরামিডের সামনে ফটোশুট করার জন্য তারা কীভাবে অনুমতি পেল বিষয়টি খতিয়ে দেখছে কর্তৃপক্ষ। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ছয় কর্মকর্তাকে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

এক বিবৃতিতে দেশটির এক মুখপাত্র জানান, পর্যটন ও প্রত্নতত্ত্ব মন্ত্রণালয় প্রাচীন মিসরীয় সভ্যতার ইতিহাস সংরক্ষণে বদ্ধ পরিকর। তিনি বলেন, ‘প্রাচীন পিরামিডগুলোতে অ’শ্লী’ল এবং অ’সম্মানজনকভাবে ছবি তোলা নি’ষি’দ্ধ।’


Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*