রাজধানীতে কাবিনে টাকা বাড়ানোর লোভ দেখিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ কাজীর


রাজধানী ঢাকার ধামরাইয়ে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় ইউসুফ আলী (৪৫) নামের এক বিবাহ রেজিস্ট্রারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) বিকেলে উপজেলার ধামরাই পৌরসভার চন্দ্রাইল এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে বুধবার (২ ডিসেম্বর) রাতে ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে ধর্ষণের অভিযোগে একটি মামলা করেন।

গ্রেফতার ইউসুফ আলী ধামরাই পৌর এলাকার নতুন দক্ষিণ পাড়া মহল্লার আমির হোসেনের বাড়ির ভাড়াটিয়া। তিনি নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা থানার হাঁপানিয়া গ্রামের মৃত লাল মাহমুদের ছেলে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, প্রায় এক মাস আগে নিজের বিয়ের কাবিনের অর্থের পরিমাণ এক লাখ থেকে তিন লাখ বাড়ানোর কথা বলে তাকে তার অফিসে ডেকে নেন কাজী ইউসুফ আলী। কিন্তু কাগজ অফিসে নেই জানিয়ে তাকে পৌর এলাকার ৮ নম্বর দক্ষিণ পাড়ার ভাড়াবাসায় নিয়ে যান। পরে ওই ভবনের চার তলায় তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করেন।

ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. সায়েদুজ্জামান বলেন, ধর্ষণের ঘটনা মীমাংসার জন্য স্থানীয়ভাবে অনেকবার বসা হয়েছিল। মীমাংসার আশ্বাসে এতদিন ওই গৃহবধূ থানায় অভিযোগ করেননি। অবশেষে গতকাল রাতে তিনি থানায় অভিযোগ করলে আজ সকালে মামলা নথিভুক্ত করা হয়। দুপুরে অভিযুক্ত কাজী ইউসুফকে পৌর এলাকার চন্দ্রাইল থেকে গ্রেফতার করা হয়। আগামীকাল শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) তাকে ঢাকার মুখ্য বিচারিক আদালতে পাঠানো হবে।

ভুক্তভোগীকে বৃহস্পতিবার সকালেই স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠানো হয়েছে বলে জানান এসআই সায়েদুজ্জামান।


Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*