যে ৫ তথ্য কখনো শেয়ার করেন না বিমানবালারা


বিমান সেবিকা বা বিমানবালা যাই বলেন না কেন কাজটা কিন্তু একই। ফ্লাইটের নানান প্রকৃতির যাত্রীর নানান বায়না সামলানো থেকে শুরু করে তাদের সুরক্ষার দায়িত্বটা বিমানবালাদের ওপরই ন্যস্ত।

বিমানে কোনো সমস্যা হলে কী’ভাবে যাত্রীদের শান্ত রাখতে হবে, সে গুরুভা’রও তাদেরই। ফলে বিমানবালাদের কাজের পরিধি বেশ লম্বা।

কিন্তু বেশ কয়েকটি এমন কাজও রয়েছে যা নিয়ে কখনোই কোনো তথ্য পাওয়া যায় না। জেনে নেয়া যাক সেই পাঁচ তথ্য।

১. ভা’রতীয় এক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, বিমানবালাদের বেতন দেয়া হয় একেবারেই ‘ফ্লাইট টাইম’ ধরে। অর্থাৎ, বিমানের দরজা বন্ধ হওয়ার সময় থেকে গন্তব্যে পৌঁছা পর্যন্ত।

২. বেশি পরিমাণে ম’দ্যপান করে বিমানে উঠলে তা মস্তিষ্কের ক্ষতি করতে পারে। যে কারণে বিমানবালারা নজর রাখেন সেদিকেও।

৩. বিমানে পানি চাইলে তা সব সময়ই সিল্‌ড বোতল থেকে খাওয়া উচিত। খোলা বোতল বা জগ থেকে ঢেলে দেয়া পানি না খাওয়াই ভালো।

৪. বিমানে ওঠার সময় সঙ্গে হ্যান্ড-স্যানিটাইজার থাকলে ভালো হয়। না হলে, কিছু খাওয়ার আগে অবশ্যই হাত ধুয়ে নিন। চেষ্টা করুন সিটের পেছনের ট্রেতে খাবার না রাখতে।

৫. ফ্লাইট চলাকালীন জানালার শাটার খুলে রাখতে বলা হয়। এর কারণ, কোনো সমস্যা হলে তা যাতে তাৎক্ষণিক বিমানবালাদের চোখে পড়ে। সূত্র: এবেলা


Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*